পুষ্টিমানে ভরপুর সয়া নাগেট স্বাস্থ্যের জন্য উপকারি

Shaon Ahmed লেখাটি পড়েছেন 72 জন পাঠক।
 মানবদেহ কর্মক্ষমে এবং সুস্থভাবে চলার জন্য পুষ্টি প্রধান ভূমিকা পালন করে। অন্যভাবে বলতে গেলে এই পুষ্টির অভাবে দেখা দেয়  নানা রোগ ব্যাধি। আশার কথা হচ্ছে কম খরচে ও সহজেই আমরা পুষ্টিকর নানা খাবার তৈরি করতে পারি। এক্ষেত্রে সয়া নাগেট ব্যবহার করে দেখতে পারেন। এখানে দুটো রেসিপি দেয়া হল। আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে:

সয়া রেড সস
উপকরণ যা লাগবে:
সয়ানাগেট ৫০ গ্রাম,
পেঁয়াজ কুচি  ২টি, রসুন বাটা ১ চা চামচ,
হট অ্যান্ড সুইট টমাটো সস ১ টেবিল চামচ, 
মরিচ গুঁড়া ১/২ চা চামচ,
মৌরি বাটা ১/২ চা চামচ, 
ক্রিম ১ টেবিল চামচ,
সয়াবিন তেল ১ টেবিল চামচ,
মাখন ১/২ চা চামচ,
লবণ আন্দাজ মতো,
চিনি বা গুঁড় ১ চিমটি।

প্রণালী

অল্প তেল দিয়ে ৫ মিনিটি গরম ফুটন্ত পানিতে ১০ মিনিট রেখে দিন। পানি থেকে ঠাণ্ডা পানিতে ঠাণ্ডা চিপে পানি ঝড়িয়ে নিন।
 কড়াইয়ে তেল গরম হলে পেঁয়াজ দিয়ে নাড়তে হবে। তারপর পেঁয়াজ স্বচ্ছ হলে মরিচ গুঁড়া, রসুন বাটা দিয়ে নেড়ে মৌরি বাটা দিন। অল্প পানি দিয়ে একটু কষিয়ে সয়া দিন। অতঃপর সস দিয়ে কিছুক্ষণ নেড়ে ক্রিম দিয়ে দিন। তারপর লবণ  ও চিনি দিয়ে ৫ মিনিট অল্প আঁচে দমে রেখে মাখন দিয়ে নামিয়ে তারপর লুচির সঙ্গে পরিবেশন করুন।

সয়া ক্ষীর

উপকরণ

দুধ ২ লিটার, 
সয়া ৫০ গ্রাম,
ছানা ২০০ গ্রাম,
বড় এলাচ গুঁড়া ২টি,
চিনি ১/২ কাপ,
খেজুর গুঁড় ১ টেবিল চামচ,
ঘি ১ চা চামচ,
বাদাম কুচি ১ চা চামচ, কিসমিস ১ চা চামচ

প্রণালী
দুধ ঘন করে নিতে হবে। সয়া ঘিয়ে ভেজে গরম পানিতে ডুবিয়ে ঠাণ্ডা পানিতে ঠাণ্ডা করে পানি চিপে দু’টুকরা করে নিন। ঘন দুধের সাথে মিশিয়ে ঘনঘন নাড়ুন। সয়া দিয়ে দিন। ক্ষীর হয়ে এলে চিনি ও গুঁড় দিন। নামিয়ে এলাচ গুঁড়া, বাদাম কুচি ও কিসমিস দিয়ে ঠাণ্ডা হলে পরিবেশন করুন।

পাঠকের মন্তব্য


একই ধরনের লেখা, আপনার পছন্দ হতে পারে

bdjogajog