ভাইরাস আক্রমণ এবং আন্ত গ্যালাক্সী সমঝোতা

আলতামাস পাশা লেখাটি পড়েছেন 82 জন পাঠক।
 (১)

আমি সোহেল আদনান। পেশায় বিজ্ঞান সাংবাদিক। ভিনগ্রহের সভ্যতার উপর আমার বিস্তর পড়ালেখা। আর এই সূত্র ধরেই ভালকানের মার্সিয়াসের সঙ্গে আমার পরিচয়। কোভিড ১৯ আক্রান্ত পৃথিবীতে এখনও চলছে লকডাউন, বিশেষত  এর উৎপত্তিস্থল চীনে। 

আমিও ২০২০ সালের প্রথম মার্চ মাস থেকে ঢাকায় লকডাউনের কবলে পড়েছিলাম। সব যোগাযোগ বন্ধ। 

আজ এপ্রিল ১৫, ২০২১। ঘরে বসে ল্যাপটপে কাজ করছিলাম। কিছুক্ষণ হল, ঘরের বারান্দায় এসে দাঁড়িয়েছি। দুটি শালিখ পাখি দূরের কার্নিসে খেলা করছে। বাইরে প্রকৃতিতে হালকা রোদ। আকাশে চলছে মাঝে মাঝে মেঘ রোদের খেলা। মনটা অস্থির লাগছে। পৃথিবী জুড়ে করোনা ভাইরাসের ধাবা। বিপর্যস্ত মানুষের স্বাভাবিক জীবন। অতীতে পৃথিবীতে যখন খারাপ সময় এসেছে, তখনই পৃথিবীর আকাশে দেখা গেছে ভীনগ্রহের স্পেস সিপ। পৃথিবীর বিপদে তাদের উৎকণ্ঠা সবসময়ই রয়েছে। বিশেষ করে ভালকান গ্রহের অধিবাসিদের। মার্সিয়াসের কথা তাই খুব মনে পড়ছে। আসলেই পৃথিবী এখন ভয়ংকর বিপর্যয়ের সম্মুখীন। চীনের পর পুরো ইউরোপ ও আমেরিকা কোভিড ১৯ এর ভয়াল ছোবলে ক্ষতবিক্ষত। সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ছে করোনা ভাইরাস। ভাইরাস প্রতিরোধে পৃথিবীর ধনীদেশগুলো ভ্যাকসিন বানানোর গবেষণায় ব্যতিব্যাস্ত। এখনও তেমন আশার আলো দেখা যাচ্ছে না। চীন, যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, অক্্রফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়, অস্ট্রেলিয়া, জার্মানী, এমনকী বাংলাদেশও চেষ্টা করছে ভ্যাকসিন বানাতে। প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় ট্রায়ালে আছে কয়েকটি ভ্যাকসিন। 

কিন্তু কি আশ্চর্য ব্যাপার! পৃথিবীর এমন একটি অবস্থায় মার্সিয়াস- মানে ভালকানদের কোন খবর পাইনি আজও। চিন্তা হচ্ছে। পৃথিবীর এমন দুঃসময়ে  হঠাৎ নিরব কেন ভালকানরা?

(২)

আজ সকালে কিছু একটা লেখার চেষ্টায় করছিলাম নোট বুকে। সামনে ল্যাপটপ খোলা। এমন সময় টেবিলের উপরে থাকা মোবাইলটা বেজে উঠলো।

‘হ্যালো সোহেল আমি মার্সিয়াস। কেমন চলছে তোমার?
খুব একটি অবাক হয়নি। কারণ আমি জানতাম মার্সিয়াসের সাথে যোগাযোগ হবেই।

ভালো নেই মার্সিয়াস। আমাদের পৃথিবী আজ ভীষণ বিপদে। তোমাদের ভালকানদের কি কিছুই করার নেই?  আমাদের বিজ্ঞানীরা কী পারবে এই মরণঘাতি ভাইরাসের প্রতিষেধক আবিষ্কার করতে?

মার্সিয়াস বলে, সোহেল, তোমাকে আমাদের দরকার আবার। কাল সকালে তৈরি থেকো। একটি নীল রঙের বিএমডব্লিউ গাড়ি তোমার বাসার সামনে থাকবে সকাল ১০ টায়। এবার বেশ কিছু দিনের জন্যে তৈরি হয়ে এসো। (চলবে)

পাঠকের মন্তব্য


একই ধরনের লেখা, আপনার পছন্দ হতে পারে

bdjogajog