ভাইরাস আক্রমণ এবং আন্ত গ্যালাক্সী সমঝোতা

বিস্তারিত পড়ুন

ভাইরাস আক্রমণ এবং আন্ত গ্যালাক্সী সমঝোতা

আলতামাস পাশা

(১) আমি সোহেল আদনান। পেশায় বিজ্ঞান সাংবাদিক। ভিনগ্রহের সভ্যতার উপর আমার বিস্তর পড়ালেখা। আর এই সূত্র ধরেই ভালকানের মার্সিয়াসের সঙ্গে আমার পরিচয়। কোভিড ১৯ আক্রান্ত পৃথিবীতে এখনও চলছে লকডাউন, বিশেষত এর উৎপত্তিস্থল চীনে। আমিও ২০২০ সালের প্রথম মার্চ মাস থেকে ঢাকায় লকডাউনের কবলে পড়েছিলাম। সব যোগাযোগ বন্ধ। আজ এপ্রিল ১৫, ২০২১। ঘরে বসে ল্যাপটপে কাজ করছিলাম। কিছুক্ষণ হল, ঘরের বারান্দায় এসে দাঁড়িয়েছি। দুটি শালিখ পাখি দূরের কার্নিসে খেলা করছে। বাইরে প্রকৃতিতে হালকা রোদ। আকাশে চলছে মাঝে মাঝে মেঘ রোদের খেলা। মনটা অস্থির লাগছে। পৃথিবী জুড়ে করোনা ভাইরাসের ধাবা। বিপর্য...

কাক কাহিনী    (ষষ্ঠ পর্ব)

বিস্তারিত পড়ুন

কাক কাহিনী (ষষ্ঠ পর্ব)

আলতামাস পাশা

ষষ্ঠ পর্ব মানুষ তো মানুষেরই খবর রাখে না। পৃথিবীর আবহাওয়া ক্রমশই চরম উল্টাপাল্টা আচরণ করছে। সারা ইউরোপ জুড়ে চলছে তীব্রদাহ, দাবানল, ঝড়, বন্যা আর বৃষ্টি। আর শুধুইবা ইউরোপ কেনো, আসলে সারা পৃথিবীব্যাপী চলছে চরম আবহাওয়া যাতে করে কাকদের স্বভাব পর্যন্ত পাল্টে যাচ্ছে! তুলতুল নামের এই কাক সম্পর্কে ভাবতে গিয়ে কাক সম্পর্কে শুনে আসা বিভিন্ন কথা নিলয়ের মনের কোণে উঁকি দেয়- অসময়ে কাকের ডাক না‘কি অশুভ কিছু বয়ে আনে। আসলেই কী তাই? কাক কি প্রকৃতির অনেক কিছু বুঝতে পারে আগে থেকেই? ঝড়-বৃষ্টি কবে হবে? মানুষের উপর কোনো বিপদ নেমে আসবে কী‘না ইত্যাদি বিষয়? তুলতুলের কথায় নিলয় আবার তার ভাবনা...

কাক কাহিনী (ধারাবাহিক সায়েন্স ফিকশন কল্পকাহিনী) পঞ্চম পর্ব

বিস্তারিত পড়ুন

কাক কাহিনী (ধারাবাহিক সায়েন্স ফিকশন কল্পকাহিনী) পঞ্চম পর্ব

আলতামাস পাশা

পঞ্চম পর্ব সব কিছু এভাবেই চলছিল । কাকটি প্রায় প্রতিদিনই আসে। নিলয়কে বিভিন্ন বিষয়ে তার জ্ঞান দেয়। মানুষ কেন অমানুষে পরিণত হতে চলেছে সে বিষয়ে তার দুঃখের কোন শেষ নেই। অনেক বিষয়ে কাকটি তার সুচিন্তিত পরিকল্পনাও প্রকাশ করে। নিলয় হঠাৎ কাকটির কাছে তার নাম জানতে চায়। কিছুক্ষণ চুপচাপ থেকে কাকা উত্তর দেয়, আমার নাম, তুলতুল। কাকের নাম আবার তুলতুল হয় কীভাবে ভাবনায় পড়ে নিলয়। পক্ষীবিদ ড. সোবহান সব কিছু শুনে পরামর্শ দিয়েছেন গোপন একটি মিনিয়েচার ক্যামেরা দিয়ে কাকের কার্যকলাপ পর্যবেক্ষণের। তিনি সিসিটিভি ক্যামেরা না লাগানোর পরামর্শ দিয়েছেন। কারণ কাকটি যদি আগে থেকেই সিসিটিভি চি...

কাক কাহিনী (ধারাবাহিক সায়েন্স ফিকসন) (চতুর্থ পর্ব)

বিস্তারিত পড়ুন

কাক কাহিনী (ধারাবাহিক সায়েন্স ফিকসন) (চতুর্থ পর্ব)

আলতামাস পাশা

চতুর্থ পর্ব পাখিদের নিয়ে নিলয়ের পড়াশুনা এগিয়ে চলে। শীঘ্রই তার জুম মিটিং হবে পক্ষীবিদ ড. সোবহানের সঙ্গে। পাখিদের সম্পর্কে অনেক কিছুই জানতো না নিলয়। যেমন পাখিরা হচ্ছে পৃথিবীর বড় আবহাওয়াবিদ। একথা আজ বিশ্বপয় প্রমাণিত সত্য যে, পাখি এবং প্রাণীরা যে কোন প্রাকৃতিক দুর্র্যোগের আগাম সংকেত পেয়ে যায় এবং নিরাপদ আশ্রয়ের সন্ধানে ছোটে সংকেত দিতে দিতে। কখনোবা ওড়ার ভঙ্গিমাতেই স্বজাতিরা এবং অন্য পাখিরা ব্যাপারটি বুঝে যায়। এমনকি পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণের সময় বা দুপুরেই যদি ঘন কালো মেঘে আকাশ ছেয়ে যায়, সে ক্ষেত্রেও পাখিরা তা বুঝে ফেলে এবং নিরাপদ আশ্রয়ে ছোটে। পাখিদের কণ্ঠস্বর ক...

কাক কাহিনী    (ধারাবাহিক সায়েন্স ফিকসন) (তৃতীয় পর্ব)

বিস্তারিত পড়ুন

কাক কাহিনী (ধারাবাহিক সায়েন্স ফিকসন) (তৃতীয় পর্ব)

আলতামাস পাশা

তৃতীয় পর্ব আসলেই কি নিলয়ের ভ্রান্ত প্রত্যক্ষণ হচ্ছে? এমনটি তো হবার কথা নয়। ল্যাপটপে সে স্বাভাবিকভাবে কাজ করছে। কোথাও কোনো গন্ডগোল নেই। কেবল এই কাকটি- আচ্ছা, পৃথিবীর সব দেশেই তো কাক আছে। নিলয়ের বাসার বারান্দার গ্রিলে বসে সেন্ডুইচ খাচ্ছে যে কাকটি তার শরীরের কোথঠর কোনো ডিভাইস লাগানো নেই তো? এমন কি হতে পাওে যে, কাকটিকে কেউ আড়াল থেকে নির্দেশনা দিচ্ছে? কাক নিয়ে কোন পরীক্ষা বা গবেষণা চালাচ্ছে? এমনটি তো মাথায় আসেনি নিলয়ের। এভাবেই দিন সাতেক চলে যায়। কাক প্রতিদিন নিলয়ের বারান্দায় এসে খাবার খেতে চায়। ভালো মন্দ নিয়ে কথা বার্তাও বলে। এই তো সেদিন বললো, ‘শোনো নিলয়, তোমাদের পৃথি...

bdjogajog