অবোধ বালিকা

বিস্তারিত পড়ুন

অবোধ বালিকা

আলতামাস পাশা

নিঃশব্দচরণে আসে বর্ষা ভেজা রাত। সমুদ্রবেলায় খেলা করে বৃষ্টি অবুঝ শিশু। ঢেউগুলো কানে কানে না না কথা ভেঙে ভেঙে বলে। অবোধ বালিকা বরষা দাঁড়িয়ে সাগরপারে।।

খড়ের গাদায় সূঁচ

বিস্তারিত পড়ুন

খড়ের গাদায় সূঁচ

আলতামাস পাশা

কোন দিন আর বলা হবে না, কি আমার দুঃখ-বেদনা। কষ্টটা তবু থাকে, কষ্টটা তবু তীব্র হয়; পেজাঁ তুলোর মতো কষ্টটা জমতে জমতে পাহার হয়। সূচেঁর মতো মনটা সেখানে হারিয়ে যায়, জীবন যেন খড়ের গাদায় সূঁচ খুঁজে ফেরার মতো নিরন্তর একরোখা প্রচেষ্টা- শুরু আছে যার, তবু শেষ নেই।।

গাছেদের কথা কেউ বলে না

বিস্তারিত পড়ুন

গাছেদের কথা কেউ বলে না

আলতামাস পাশা

গাছেরা যে কথা বলে জানতাম না। জগদীশবাবু গাছের প্রাণ আছে বলে কতকাল হল স্বর্গবাসী।। গাছেদের নিয়ে এখন তেমন কেউ আর ভাবে না। ভাবার সময়ও পায় না। এখন মানুষের দরকার জ্বালানির; গাছ কাটা পড়ে কারণে এবং অকারণে। গাছ কাটা হয়, গাছ মরে যায়- কয়লার ধোঁয়া উঠে আট’শত ইঞ্চি চিমনি দিয়ে; ধোঁয়া উড়ে চলে সুন্দরবনের দিকে। চোখদুটি জ্বালা করে বাঘ ও হরিণের। অন্ধত্ব গ্রাস করে প্রাণীদের দৃষ্টি শক্তি। ইরাবতি ডলফিনের দল পথ হারায় সাগরে; গাছেদের র্দুদিনে কীটপতঙ্গ বাস্তুহারা হয়; গাছেরা আর প্রতিবাদে সোচ্চার হতে পারে না। পাতায় পাতায় আর প্রতিবাদী চিৎকার উঠে না। কোথায় যেন শ্রেণীহীন নিঃস্তব্ধত...

‘সুবোধ’ তুমি বেওয়ারিশ কুকুর হও

বিস্তারিত পড়ুন

‘সুবোধ’ তুমি বেওয়ারিশ কুকুর হও

আলতামাস পাশা

‘সুবোধ ’ তুমি বেওয়ারিশ কুকুর হও। তোমার জন্য পক্ষে-বিপক্ষে রাজপথে হবে অবস্থান ধর্মঘট। তোমাকে আর দেওয়াল লিখন আঁখতে হবে না; সুশীলরাই এঁকে দেবে। সাবধান থেকো ‘সুবোধ ’ এবার তোমার বন্ধাকরণ চলবে অথবা তুমি হবে স্থানচ্যুত, বা বাস্তুহারা। নিজেই পালাও তুমি, পারবে কি পালাতে? এ শহর তোমার জন্য আর নিরাপদ নয়। এ শহরে বর্তমানে নারী ও ‘সুবোধ ’ কেউ তোমরা আর নিরাপদ নও। অতত্রব, পালাবে কোথায়? কোন উপত্যকায়?

না জানা কথা

বিস্তারিত পড়ুন

না জানা কথা

আলতামাস পাশা

এক বিষণ্ণ সন্ধ্যায় আমি জানতে পারলাম সত্যি সত্যিই আমার কোনো সম্পদ নেই; কখন অবহেলায় ফেলে এসেছি শৈশবের সঞ্চয়। হেলায় পার করেছি কৈশোরের দুর্দান্ত প্রহর; সাথীরা আজ সব কে কোথায় নিরুদ্দেশ। কোথায় এবং কি করছে তারা এখন তা আমার ধারণার বাইরে। আমি পথ চলি একা! বিবর্ণ ঝরে পড়া পাতার মতো; পাতারা কথা বলে অব্যক্ত স্বরে; পাতারা আকার নেয় মানুষের রূপে; এরপর বিভিন্ন অবয়বে পূর্ণ মূর্তি নেয়; গাছের সঞ্চয় আছে মূল এবং কাণ্ডে; দীর্ঘজীবি বৃক্ষ বয়ে বেড়ায় মানুষের অগণিত দুঃথ-কষ্টের স্মৃতি; পাতারা বিবর্ণ হয়; ঝরে পড়ে তারপর; কিন্ত জীবন কোথাও থাকে না থেমে। অর্থহীন জীবনও বারবার ছেয়ে যায় নতুন পাত...

bdjogajog